Death warrant on my head


I am looking to find a group of cowards. They have issued a warrant for my death. My crime is that I’ve uncovered the truth. I have the speed, nature, writing style, way of speaking, their activities, they can say about the program.
They are killing people in the name of religion in the world. My crime was to criticize the murder.
Professionally I am a journalist. According to reports, the policy is written or not, I have to write the data of blogs and social media, the Islamic militants who want to kill me.
The Islamic militant backing many people are wearing masks. If you do not like to kill people they could not openly. When the mask men is search to come out, he tried to stop me with the threat continues.
I did not bow down to any wrongdoing, much repression, torture was. Was attacked three times. I’m miraculously alive.
The Islamic militant and his associates, could not kill me, they are my children and threatened to kill family members. Hence, I have went to save the life of children and families. Taking advantage of the media, I was fired.
On the one hand, while on the run death fair added financial hardship. Three years hiding away. But we do not bow down.
Almost all of the owners of the media, including the Islamic militant group is the protection of religious fundamentalism! I got to know the inner secrets of the media. I do not support the spirit of their ideal. The business name of the service of humanity. The common people in the name of good business. The main objective of the media business. The media is not any political party works. Or to protect the media has made unethical business. The company is managed by masked men, some of the media called progressive.
I’m not journalism. However, I am satisfied because I did not do bow down to injustice.
Small people like me would not give asylum to any country. That I have no regrets. Maybe I’m saving lives around the village to village. However, I take consolation in saying that, I am still against Islamic militants. I would protest any wrongdoing. I’m working for the people of the world.
I believe that someone will support me. And then I masked militants with experience in front of everyone, and will represent the donors supporting the militants.
Yes, I am hungry, I am afflicted. Still, I found the peace that I have devoted himself to the service of humanity. I also found the peace that I know how to hate the Islamic militants.
Stay alive so long, I will write against the Islamic militants.
I know that my death warrant has been issued by Islamic militants. Trust me, I’m afraid. Instead, take pride in saying that I hate the Islamic militants and their supporting donors.
I believe that some country will come forward to save me. Because I know the technique to identify Islamic militants. Those who believe that, rather than resistance, better preventive, the country or the people will not give me shelter.

আমার মাথার ওপর মৃত্যূ পরওয়ানা

একদল কাপুরুষ আমাকে খুজে বেড়াচ্ছে। ওরা আমার মৃত্যু পরওয়ানা জারী করেছে। আমার অপরাধ হলো, আমি সত্য উন্মোচিত করছি। আমি তাদের চলার গতি, স্বভাব, লেখার ধরন, কথা বলার ধরন, তাদের কার্যকলাপ, তাদের কর্মসূচি সম্পর্কে বলতে পারি।
এরা সারা ধর্মের নামে পৃথিবীতে মানুষ হত্যা করছে। এসব হত্যা নিয়ে সমালোচনা করাই হলো আমার অপরাধ।
আমি পেশাগতভাবে একজন সাংবাদিক। সংবাদের নীতিমালা অনুযায়ি যেসব কথা লেখা বা বলা যায় না, আমি সেসব তথ্য উপাত্ত ব্লগ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখি বলে, ইসলামী জঙ্গীরা আমাকে হত্যা করতে চায়।
এসব ইসলামী জঙ্গী গোষ্ঠীকে সমর্থন দিচ্ছে অনেক মুখোশ পরা মানুষ। না হলে এভাবে প্রকাশ্যে ওরা মানুষ হত্যা করতে পারতো না। আমার অনুসন্ধানে যখন মুখোশপরাদের নাম বের হয়ে আসতে থাকে, তখন আমাকে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে থামানোর চেষ্টা চলতে থাকে।
আমি অন্যায়ের কাছে মাথানত না করায়, অনেক অত্যাচার, নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে। তিন বার হামলার শিকার হয়েছি। আমি অলৌকিক ভাবে বেচে আছি।
এসব ইসলামী জঙ্গী আর তার সহযোগিরা, আমাকে হত্যা করতে না পেরে, তারা আমার সন্তান আর পরিবারের লোকজনকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। অত:পর সন্তান আর পরিবারের জীবন রক্ষার্থে আমি আত্মগোপন করি। এই সুযোগে সংবাদমাধ্যম আমাকে চাকরীচ্যুত করে।
একদিকে মুত্যুভয়ে পালিয়ে থাকা অন্যদিকে যোগ হলো আর্থিক কষ্ট। তিন বছর হলো পালিয়ে বেড়াচ্ছি। তারপরেও মাথানত করিনাই।
বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমের মালিকরা প্রায় সবাই, এসব ইসলামী জঙ্গী গোষ্ঠি সহ ধর্মীয় মৌলবাদের আশ্রয় দাতা! এসব সংবাদমাধ্যমের ভেতরের রহস্য আমি জেনে গেছি। আমি তাদের আদর্শহীন মনোভাবকে সমর্থন করিনা। এরা মানবতার সেবার নামে ব্যবসা করছে। সাধারন মানুষের উপকারের নামে ব্যবসা করছে। এসব সংবাদ মাধ্যমের মূল উদ্দেশ্য হলো ব্যবসা। এসব সংবাদ মাধ্যম কোন না কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে কাজ করে। অথবা অনৈতিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে রক্ষা করতেই সংবাদ মাধ্যম তৈরী করেছে। এসব প্রতিষ্ঠানে মুখোশ পরা কিছু প্রগতিশীল নামক লোককে দিয়েই পরিচালনা করছে এসব সংবাদ মাধ্যম।
আমি এখন সাংবাদিকতা করছি না। তবে, আমি তৃপ্ত এই কারনে যে, আমি অন্যায়ের কাছে মাথানত করিনাই।
আমার মত ছোটখাট মানুষকে হয়তো কোন দেশ আশ্রয় দেয় নাই। তাতেও আমার কোন আফসোস নাই। আমি হয়তো এ গ্রাম ওগ্রাম ঘুরে ঘুরে জীবন রক্ষা করছি। তবে, আমি এই বলে সান্তনা গ্রহণ করি যে, আমি এখনো ইসলামী জঙ্গীদের বিরুদ্ধে অবস্থান করি। আমি অন্যায়ের প্রতিবাদ করি। আমি পৃথিবীর মানুষের জন্য কাজ করছি।
আমি বিশ্বাস করি যে, কেউ না কেউ আমাকে সমর্থন দিবেন। আর তখন আমি আমার অভিজ্ঞতা দিয়ে মুখোশ পরা জঙ্গী আর জঙ্গীর মদদ দাতাদের সবার সামনে তুলে ধরবো।
হ্যা, আমার ক্ষুধা লাগে, আমি কষ্ট পাই। তারপরেও, আমি এই বলে শান্তি পাই যে, আমি মানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি। আমি আরো শান্তি পাই যে, আমি ইসলামী জঙ্গীদের ঘৃনা করতে জানি।
তাই যতদিন বেচে থাকবো, এসব ইসলামী জঙ্গীর বিরুদ্ধে লিখতেই থাকবো।
আমি জানি, ইসলামী জঙ্গীরা আমার মৃত্যু পরওয়ানা জারি করেছে। বিশ্বাস করুন, আমি তাতে ভীত নই। বরং এই বলে গর্ব করি যে, আমি ইসলামী জঙ্গী ও তাদের মদদ দাতাদের ঘৃনা করি।
আমি বিশ্বাস করি যে, কোন না কোন দেশ আমাকে বাচাতে এগিয়ে আসবেই। কারণ, ইসলামী জঙ্গীদের চিহ্নিত করার কৌশল আমি জানি। যারা বিশ্বাস করে যে, প্রতিরোধের চেয়ে, প্রতিষেধক উত্তম, সেসব দেশ বা মানুষ আমাকে আশ্রয় প্রদান করবেই।   

  

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s